দ্বীনিয়াত শিক্ষা কার্যক্রমের উদ্দেশ্য

দ্বীনিয়াত
  • শতকভাগ উম্মত তথা: শিশু-কিশোর, যুবক- বয়স্ক (পুরুষ-মহিলা) সকলের কাছে মৌলিক দ্বীন পৌছানোর চেষ্টা করা।
  • মুসলিম বাচ্চাদেরকে বিশুদ্ধ কুরআন তেলাওয়াত ও মৌলিক দ্বীন শিক্ষা দেয়া এবং তাদেরকে ধর্মীয় চেতনা, ইসলামী মুল্যবোধ ও শিষ্টাচারের আদলে গড়ে তোলা।
  • প্রতিটি মুসলিম এলাকা এবঙ মসজিদে দ্বীনিয়াতের আদর্শ মাকতাব প্রতিষ্ঠা করা।
  • মাকতাব প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বর্তমান ও আগামী প্রজন্মের দ্বীন ও ঈমান হেফাজত করা এবং তাদের মাঝে কুরআন-সুন্নাহর মৌলিক শিক্ষা বিস্তার করা।
  • অল্প সময়ে একাধিক মসুলিম বাচ্চাদের দ্বীনের মৌলিক শিক্ষা দেয়ার লক্ষ্যে বিভিন্ন কিন্ডারগার্টেন ও স্কুলে দ্বীনিয়াত কোর্স চালু করা।
  • Electronics & Print Media-এর মাধ্যমে দ্বীন ও ইসলামের মৌলিক শিক্ষা ব্যাপক প্রচার-প্রসার করা।
  • প্রতিটি বস্ত, পথশিশু ও বঞ্ছিতদের কাছে কুরআনের তালিম পৌছানোর চেষ্টা করা।
  • সর্বপরী মাকতাব শিক্ষাকে যুগের চাহিদা অনুপাদে সংস্কার, আধুনিকায়ন, সুষ্ঠভাবে পরিচালনা ও বয়স ভেদে ভিন্ন ভিন্ন সিলেবাসের মাধ্যমে সর্বশ্রেণীর মুসলমানদের কাছে দ্বীনের গুরুত্বপুর্ণ ও মৌলিক শিক্ষা পৌছে দেওয়াই দ্বীনিয়াতের উদ্দেশ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *