দ্বীনিয়াত শিক্ষা কার্যক্রমের উদ্দেশ্য

শতকভাগ উম্মত তথা: শিশু-কিশোর, যুবক- বয়স্ক (পুরুষ-মহিলা) সকলের কাছে মৌলিক দ্বীন পৌছানোর চেষ্টা করা। মুসলিম বাচ্চাদেরকে বিশুদ্ধ কুরআন তেলাওয়াত ও মৌলিক দ্বীন শিক্ষা দেয়া এবং তাদেরকে ধর্মীয় চেতনা, ইসলামী মুল্যবোধ ও শিষ্টাচারের আদলে গড়ে তোলা। প্রতিটি মুসলিম এলাকা এবঙ মসজিদে দ্বীনিয়াতের আদর্শ মাকতাব প্Read More…

কুরআন শিক্ষা করার গুরুত্ব ও ফযীলত

কুরআন শব্দের অর্থ: পাঠ করা, যা পাঠ করা হয়। আর পরিভাষায়-আল্লাহ তা‘আলা জিবরাঈল আলাইহিস সালামের মাধ্যমে সুদীর্ঘ ২৩ বছরে মানব জাতির হেদায়াত হিসাবে রাসূলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের উপর যে কিতাব অবতীর্ণ করেছেন তার নাম আল কুরআন। আল-কুরআন কি? এ প্রশ্নের জবাব স্বয়ং কুরআনই দিয়েছে। কুরআনের ভাষRead More…

দ্বীনিয়াত কি?

দ্বীনিয়াত কি? দ্বীনিয়াত হলো সাধারণ মানুষকে দীন শেখানোর একটি কার্যক্রম। সাধারণ মানুষ বলতে বোঝানো হয়েছে যারা মাদরাসা-মসজিদের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে দীনি শিক্ষা অর্জন করছে না। বরং তারা সাধারণ শিক্ষায় গ্রহণ করছে বা করেছে। অথবা যারা কোনো প্রকার শিক্ষাই গ্রহণ করে নি। বিশ্লেষন করে দেখা গেছে বর্তমান বিশ্বে মুসRead More…